সৈয়দ নাছিরুল হক মাসুম: একজন আদর্শ শিক্ষকের প্রতিকৃতি ॥ শাহরিয়ার কাসেম

1
239
views

সৈয়দ নাছিরুল হক মাসুম পেশায় একজন গণিত শিক্ষক ছিলেন। তিনি কর্মজীবন শুরু করেন শিক্ষকতা দিয়ে। ফান্দাউক পণ্ডিত রাম উচ্চ বিদ্যালয়ই শিক্ষাদান শেষ করেন। তার এই দীর্ঘ পাঠদানের সময় কত ছাত্র-ছাত্রীদের প্রিয় হয়ে উঠেছিলেন এর অন্ত নেই। বলতে গেলে, এখন বিভিন্ন স্থানে ফান্দাউক পণ্ডিতরাম উচ্চ বিদ্যালয়ের নাম মুখে উঠলেই সৈয়দ নাছিরুল হক মাসুমের নাম সবার আগে আসে। প্রত্যেকেই তার গুণকীর্তনে থাকে পঞ্চমুখ।

সৈয়দ নাছিরুল হক মাসুম শুধু একজন আদর্শ শিক্ষক নন, অসংখ্য মানুষের অনুপ্রেরণার উৎসও ছিলেন। তার অনুপস্থিতিতে তাকে নিয়ে লিখতে গিয়ে শুরুতেই মনে হয় আমার ইতিহাসের একটি অধ্যায়ের ইতি ঘটলো। কারণ তিনি শুধু সৃষ্টিতেই বিশ্বাসী ছিলেন। সৃষ্টি করেছেনও। গড়েছেনও আপন যত্নে, আপন মহিমায়।

তিনি একজন আদর্শ শিক্ষকের প্রতিকৃতি। আমি সৈয়দ নাছিরুল হক মাসুমকে শিক্ষক হিসেবে দেখিনি। বলতে গেলে সে জনম আমি পাইনি। তবে জীবনের দিক নির্দেশনায় আমি তাকে পেয়েছিলাম বহুদিন। তিনি শিক্ষকতার আনুষ্ঠানিক সমাপ্তির শেষেও শিক্ষা দিয়েছেন। তবে সেটা পাঠ্যসূচির শিক্ষা নয়। সেটা মানুষকে সৎ পথে চলতে, অসৎ পথে নিষেধের শিক্ষা। এমনকি তিনি এ শিক্ষাদানের মধ্য দিয়েই পরপারে চলে যান।

তবে আমি যখন সৈয়দ নাছিরুল হক মাসুমকে পেয়েছি, তখন কথা বলতে গেলে দু’চোখে ভেসে ওঠে সেই আমার ছেলেবেলার কথা। আমি যখন তাকে প্রথম দেখেছি, তখন তিনি একজন প্রবীণ, আমার কাছে মনে হয়েছিল গল্প-পুরাণে শোনা কোনো মহাপুরুষ। ধবধবে সাদা কলার বিহীন পাঞ্জাবি, সাদা পায়জামা, সবুজ পাগড়ি, হাতে লাঠি। আমার তখন থেকেই তার প্রতি মুগ্ধতার শুরু তা আজও রয়েছে।

একজন মানুষ কত স্বচ্ছ হলে এই কর্দমাযুক্ত পরিবেশে নিজেকে রেখেন আলাদাভাবে? নিখুঁত তার সব কিছুই। নিখুঁত ছিল প্রাত্যহিক জীবন। এতটাই নিখুঁত যে, তিনি পান খেলেও পানের পিচ ফেলতেন একটি নির্দিষ্ট বাক্স। মানুষ সাধারণত পান খেলে অন্তত সাদা জামায় পানের আঁচ একটুও হলে ফেলে। অথচ তিনি কতই সতর্ক ছিলেন।

সৈয়দ নাছিরুল হক মাসুমের মতো একজন আদর্শ শিক্ষক হিসেবে বর্তমানে তার জুড়ি মেলা ভার। তিনি শিক্ষার আলো প্রত্যেক ছাত্র-ছাত্রীদের মাঝে বিলিয়েছেন। কার্পণ্য করেননি শিক্ষা দিতে।

1 COMMENT

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here