মেঘপরি ও অন্যান্য ॥ শাহানারা ঝরনা

0
135
views

ঝুম নাচুনি মেঘ বালিকা
মেঘ বালিকা মেঘের মেয়ে দুষ্টুমিতে নীল
ইচ্ছে হলেই খুনসুটিতে হাসো যে খিলখিল
ধানের ক্ষেতে কদম পাতায় কচি পাটের বন
রিনি ঝিনি জলের ঝালর ওড়াও সারাক্ষণ

অলস বেলায় দাও ছড়িয়ে ঝুম বৃষ্টির ফুল
মেঘ বালিকা , কোথায় শুকোও রেশম কালো চুল?
পুকুর ডোবায় ঝোপের কোণে ডাহুক ছানার ঘর
পালকি চড়ে আসবে কি আজ,শ্যামলা মেয়ের বর?

নদীর ধারে, বাঁশের ঝাড়ে ভেজে পাখির ঝাঁক
পেখম মেলে ময়ূর নাচে পায়রা বাকুম বাক।
মেঘ বালিকা তোমার ছোঁয়ায় কুমড়োলতা চুপ
লক্ষ্মীমতি বধূ জ্বালে পূজার ঘরে ধুপ।

ভেজা শালিক জটলা করে, পাতায় রোদের নাচ
বিল বাওরে মনের সুখে সাঁতার কাটে মাছ ।
কুণো ব্যাঙের কান্না শুনে চমকে তাকায় বক
বৃষ্টি ভিজে কানামাছি খেলার জাগে শখ।

চোখের কোণে ঘুমের আবেশ মনে বাঁশির সুর
নৌকো দোলে, মনমাঝি গায়, যাবে সে কদ্দুর?
মেঘ বালিকা, ঝুম নাচুনি রূপো রঙের ঢেউ
দস্যিপনায় তোমার সাথে পারবে না যে কেউ!

মেঘপরি
মেঘেদের ঘনঘটা আকাশের গায়ে আজ
করে শুধু খুনসুটি ভুলেছে কি সব কাজ?
ঝরোঝর রিনিঝিন সারাদিন ঝরছে
ফেলে আসা কতো কথা মনে শুধু পড়ছে

বুকে জাগে ব্যথা খুব ডাহুকীর কান্নায়
রাঙা বউ মগ্ন যে রকমারি রান্নায়…
নদীজল ছলোছল..মাঝিদের মনে সুর
নায়রিকে নিয়ে যাবে, কোন গাঁয়ে, কতদূর?

বারোমেঘা দলবেঁধে নায়রে যে এসেছে
এদেশের রূপ বুঝি খুব ভালোবেসেছে!
মেঘপরি আহা মরি…অপরূপা সৃষ্টি
রূপ তার কেড়ে নেয় মরুচারী দৃষ্টি

ইথারীয় সুরে দোলে রকমারি ভাবনা
মেঘপরি তাকে ছেড়ে, কোত্থাও যাব না

কাজের মাঝেই
গভীর রাতে স্বপন দেখি সকাল যখন হয়
ইচ্ছেগুলো পাখির মতো ওড়ে আকাশময়
কল্পনা আর বাস্তবতায় হয় না কোনো মিল
স্বপ্ন যেন তাই হয়ে যায় লাল সাদা গাংচিল!

এমনটি তো হতেই পারে আজ আছি কাল নাই
তাই বলে কি বিফল হবে পুরো জীবনটাই?
দুঃখ পেলেই কাঁদে মানুষ তাইতো সুখের দাম
বড় রকম করলে কিছু যায় ছড়িয়ে নাম…

মন্দ ভালো সব মিলিয়েই জীবন সুখের হয়
কাজের মাঝেই মেলে সবার সঠিক পরিচয়!

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here